সর্বশেষ সংবাদ ::

শেরপুরের ঐতিহাসিক মা ভবানীর মন্দিরে রাম নবমী উৎসব

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি : উপমহাদেশের ৫১টি পীঠস্থানের অন্যতম বগুড়ার শেরপুরের ঐতিহাসিক মা ভবানীর মন্দির প্রাঙণে বুধবার (১৭এপ্রিল) রাম নবমী উৎসব উদযাপিত হয়েছে। দিনটিকে ঘিরে সকাল থেকেই অতীত জীবনের পাপ মোচনসহ পূন্যলাভের আশায় মন্দির সংলগ্ন শাঁখারী পুকুরে রাম নবমী স্নানে অংশ নেন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা। অন্যান্য বছরের ন্যায় এবারো ভারতসহ দেশ-বিদেশের পূণ্যার্থীরা এসেছেন ওই স্নান উৎসবে।
উৎসব কমিটির আহবায়ক দিলীপ কুমার দেব জানান, প্রতি বছর চৈত্রের রাম নবমী তিথিতে মন্দির ও তার আশেপাশের এলাকাজুড়ে এই স্নান উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় রাম নবমী উৎসবটির আয়োজন করা হয়েছে। এই উপলক্ষে গত মঙ্গলবার বিকেল থেকেই দেশ বিদেশের পূণ্যার্থীরা আসতে থাকেন। তাই বুধবার দর্শনার্থীদের পদভারে মন্দির প্রাঙ্গন ও আশেপাশের এলাকা কাঁনায় কাঁনায় ভরে ওঠে। মন্দিরস্থল হয়ে ওঠে আগত পূণ্যার্থীদের মিলনমেলায়।
ধর্মীয় শাস্ত্র্যমতে, দিনটিতে এই স্থানে অংশ নিলে তার অতীত জীবনের পাপ মোচনসহ পূন্যলাভ হয়। আর সেই আশায় দেশ বিদেশের হাজার হাজার ভক্ত নর-নারী ও শিশু কিশোর মন্দিরের শাঁখা পুকুরে স্নান করেন। সেইসঙ্গে ঐতিহাসিক এই মন্দিরে রক্ষিত প্রতিমা দর্শন, পূজাঅর্চনা, ভোগদান, অর্ঘদান, মাতৃদর্শন করেন ভক্তরা। মন্দিরের পক্ষ থেকে ভক্তদের মাঝে প্রসাদ বিতরণ করা হয়।
মন্দির কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অমৃত লাল সাহা ও প্রচার সম্পাদক নিমাই ঘোষ জানিয়েছেন, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে উৎসবটি পালিত হচ্ছে। আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর পাশাপাশি মন্দির কমিটির নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক দলও কাজ করছেন। এই উৎসবে এবার প্রায় অর্ধলাখ লোক অংশ নিচ্ছেন। শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপিত হওয়ায় আইনশৃঙ্খলাবাহিনীসহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তাঁরা।
এদিকে রাম নবমী উৎসবকে ঘিরে প্রতিবছরের ন্যায় মা ভবানী মন্দিরের চারপাশে মেলা বসেছে। মেলায় মিষ্টান্ন সামগ্রীসহ পাওয়া যায় রকমারি খাবার। সেইসঙ্গে শিশুদের বিভিন্ন খেলনা, ইতিহাস ঐতিহ্যখ্যাত বই পুস্তকও মেলায় পাওয়া যায়। এছাড়া দিনটি উপলক্ষ্যে শেরপুর শহরের রাধা গোবিন্দ ও জগন্নাথ মন্দিরে পূজা অর্চনা করা হয় বলে সূত্রটি জানায়।

Check Also

ভোটারদের ভয় দেখালে প্রার্থিতা বাতিল করা হবে : বগুড়ায় ইসি রাশেদা

বগুড়া সংবাদ :  ভোটারদের ভয় দেখালে প্রার্থিতা বাতিল করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার রাশেদা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *