সর্বশেষ সংবাদ ::

পরিচয়পত্রে থাকা পিতার নাম পরিবর্তনের চেষ্টা করে মুক্তিযোদ্ধার অর্থ-সম্পত্তি হাতিয়ে নেয়ার পায়তারা: থানায় অভিযোগ

বগুড়া সংবাদ :  জাতীয় পরিচয়পত্রে পিতার নাম পরিবর্তন করে একজন প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম লেখিয়ে তার সকল অর্থ সম্পত্তি ভোগ করার পায়তারার অভিযোগ এনে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগটি করেছেন লালমনিরহাট জেলার কালিগঞ্জ থানার ভুটমারি ইউনিয়নের জামিরবাড়ি গ্রামের প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল জলিল এর পুত্র মো. বেলাল হোসেন।

তিনি কালিগঞ্জ থানায় উপস্থিত হয়ে পাবনা জেলার জেলা কারাগার গোপালপুর এর অধিবাসী মৃত কিয়াম উদ্দিনের কন্যা মোছা: বেবি বেগমের (৫০) বিরুদ্ধে এই অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগে তিনি বলেন এই বেবি বেগম আমার সম্পুর্ণ অপরিচিত মহিলা এবং আমার জীবদ্দশায় তার সহিত সাক্ষাত হয়নি। এমতাবস্থায় আমার কাছে মনে হয়েছে এই মহিলা একজন প্রতারক। সে প্রতারনা করার উদ্দেশ্যে জাতীয় পরিচয় পত্রে তার বাবার নাম মৃত কিয়াম উদ্দিন পরিবর্তন করে বিবাদী বেবি বেগম আমার বাবা বীর মক্তিযোদ্ধা আব্দুল জলিল সংশোধন করার জন্য লালমনিরহাট জেলা নির্বাচন অফিসে আবেদন করে।

সে এনআই্িডতে পরিবর্তন করে আমার বাবার রেখে যাওয়া সকল সম্পত্তি থেকে আমাদেরকে বঞ্চিত করতে চায়। এবং আমার কাছে আরো মনে হয়েছে যে আমার বাবা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন যার কারনে সে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা সহ আনুষাঙ্গিক সকল সুযোগ সুবিধা ভোগ করার পায়তারাতে সে লিপ্ত। ভবিষ্যতে সে যেন কোনভাবে এএনআইডিতে থাকা তার বাবার নাম পরিবর্তন করে আমার বাবার নাম বসিয়ে প্রতারনা করতে না পারে সেজন্য তিনি প্রশাসন সহ সকলের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে তদন্ত অফিসার কালিগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মো: মুঞ্জুরুল আলম জানান তদন্তে বেবি খাতুনের প্রতারনার বিষয়টি উঠে এসেছে। তবে সঠিক তথ্য জানার জন্য আরো অধিকতর তদন্তের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীণ রয়েছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত বেবি খাতুনের মুঠো ফোনে বক্তব্য জানতে চাইলে পরে কথা বলবেন বলে ফোন কেটে দেন। জানা যায়, অভিযুক্ত বেবি বেগম রংপুর জেলা কারাগারে মহিলা কারারক্ষী হিসেবে কর্মরত আছেন।

Check Also

গাবতলীতে ৩দিনব্যাপী কৃষি প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন করলেন প্রধান অতিথি এমপি নান্নু

বগুড়া সংবাদ : বুধবার বগুড়ার গাবতলীতে ৩দিন ব্যাপী কৃষি প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন শেষে প্রধান অতিথির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *