সর্বশেষ সংবাদ ::

জোড়পুর্বক জমি দখলের পায়তারা ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

বগুড়া সংবাদ :  জোড় পুর্বক জমি দখলের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে এবং পরবর্তীতে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করার প্রতিবাদে বগুড়ায় সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় এই অভিযোগে বগুড়া প্রেসক্লাবে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন গাবতলী উপজেলা মহিষাবান গ্রামের ইমাম পাইকার এর পুত্র মুক্তার পাইকার। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন গত ৩/০৩/২০২৪ তারিখ  রোববার বিকাল ৩টরি দিকে ধান ক্ষেতে কৃষিকাজ করা অবস্থায় খবর পাই যে,  একই এলাকার মাহমুদল মন্ডল এর পুত্র রিপন মিয়া, মৃতঃ হবিবর রহমান মন্ডল এর পুত্র মাহমুদ মন্ডল মৃতঃ আব্দুল জলিল এর পুত্র শিমুল আমিন, মকবুল হোসেন এর পুত্র লাল মিয়া, শাহাদৎ হোসেন এবং মামুন মন্ডল এর পুত্র রাব্বী সহ আরো ৫/৭ জনের চিহ্নিত মুখ চেনা লোকজন আমার  বাড়িতে আমিন নিয়ে এসে মাপ যোগ করে সীমানা পিলার আমার জায়গার ভেতরে প্রায় ৪ ফিট ঢুকে স্থাপন করেছে। বিষয়টি এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তি ও মেম্বারকে জানালে তারা বিষয়টি সরেজমিন দেখে চলে যান। এরপর একই দিনে বিকাল ৪ টার দিকে আবারও ওই সীমানা পিলার নিয়ে তারা আবারও হঠাৎ করে আমার বাড়ীর আঙ্গীনায় এসে লাঠি সোটা নিয়ে হাজির হয় এবং অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করতে থাকে আমি বাধা নিষেধ করিলে মোঃ রিপন মিয়া সহ তাহার ভাড়া করা লোকজন আমার বাড়ীর টিনের বেড়ায় লাথি গুড়ি ও লাঠি দিয়ে কোপাতে থাকে। তাদের বসত বাড়ীর সীমানা চৌকষ করার জন্য এহেন ঘটনা ঘটায় এবং আমাকে ভয় ভীতি ও হুমকি ধামকি প্রদান করে। তাদেরকে ০২ শতক জমি লেখে দেওয়ার জন্য এবং লিখে দিয়ে টাকা নেওয়ার জন্য বলে। কিন্তু আমি পৈত্রিক ভিটা বিক্রি করতে রাজি না হওয়ায় তারা আরও ক্ষিপ্ত হয়। তৎপর আমার ভাবী ও বড় ভাইকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় এবং আবার আমার বড় ভাইয়ের বউকে আঘাত করে। পরে চিল্লা চিল্লি শুনে আশে পাশে প্রতিবেশী এগিয়ে এলে আমার ভাবীকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে চিকিৎসা দেয়। পরবর্তী গত ইং ১৪/০৩/২৪ তারিখে হঠাৎ বাড়ীতে সন্ধায় পুলিশ এসে আমাকে গ্রেফতার করে এবং আমার বড় ভাই মোঃ মোতাহার হোসেন আমার ভাতিজা মোঃ আতিকুল ইসলাম পাইকাড়, তার বউ মুন্নি বেগম সহ সকলের বিরুদ্ধে মামলা করে। উক্ত সন্ত্রাসি ব্যক্তির নিজেদের মাথায় নিজেরাই ব্লেট দিয়ে আঘাত করে আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে। মামলা নং-জি আর-৬৮/২৩ গাবতলী থানা, মামলা রজু হয়। পরবর্তী বিজ্ঞ জেলা দায়রা জজ আদালত থেকে আমার জামিন মুঞ্জুর হয়ে জেল থেকে ছাড়া পেয়ে রাস্তা দিয়ে বাড়ীর দিকে যাওয়ার পথে রিপন সহ উল্লেখিত সন্ত্রাসী ব্যাক্তিগণ আমাদের ভ্যান গাড়ী থামিয়া বলে ০২ শতক জমি লেখে না দিলে পুনরায় আবার মামলা করব এবং আবার সবাইকে জেল খাটাবো। আমরা গ্রামের অশিক্ষিত কৃষক লোক তাদের ভয় ভীতি ও হুমকি ধামকি শুনে বাড়ীতে না গিয়ে আমার বোনে বাড়ীতে আশ্রয় নেই। এখন আমরা মানবেতর জীবন যাপন করছি। পরিশেষে এই ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত পুর্বক তিনি দেশবাসী সংবাদ মিডিয়া কর্মিবৃন্দসহ প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাসহ সকলের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এবং তাদের উপর আরোপিত মিথ্য মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

Check Also

বগুড়ায় তিন সংসদ সদস্যকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন নব-নির্বাচিত কাহালু উপজেলা চেয়ারম্যান সুরুজ

বগুড়া সংবাদ :  কাহালু উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ- সভাপতি ও নব-নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান আল হাসিবুল হাসান …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *